শিক্ষা স্তর

জামিয়ার বর্তমান শিক্ষা স্তরসমুহ নিম্নরূপ-
১. মক্তব ( কিন্ডারগার্টেন);
২. হিফ্‌জ বিভাগ;
৩. ইবতেদায়ী (প্রাথমিক);
৪. মুতাওয়াস্‌সিতা (নিম্ন মাধ্যমিক);
৫. ছানুভী ( উচ্চ মাধ্যমিক);
৬. ফজীলত (স্নাতক);
৭. তাকমীল ( স্নাতকোত্তর);
৮. আরবী ভাষা ও সাহিত্য বিভাগ।
মক্তব স্তর থেকে তাকমীল পর্যন্ত প্রদত্ত শিক্ষা ১৪ বছরে সমাপ্ত হয়ঃ মক্তব স্তর দু বছর, ইবতেদায়ী তিন বছর, মুতাওয়াস্‌সিতা স্তর তিন বছর, ছানুভী স্তরও তিন বছর, ফজীলত স্তর দু’বছর এবং তাকঅমীল স্তর এক বছর।
উল্লেখ্য যে, এই শেষোক্ত স্তরেই হাদীস শাস্ত্রের মৌলিক গ্রন্থগুলো তথা সহীহ বুখারী, সহীহ মুসলিম, সুনানে তিরমিযী, সুনানে আবু দাউদ, সুনানে নাসায়ী, সুনানে ইবনে মাজা, মুয়াত্তা ইবনে মালেক, মুয়াত্তা ইমাম মুহাম্মদ, শরহু মা’আনিল আসার এবং ইমাম তিরমিযী প্রণীত শামায়েলে কিতাব শিক্ষাদান করা হয়।
বাকী থাকল হিফ্‌জ বিভাগ। এই বিভাগের নির্দিষ্ট সময়সীমা নেই। বস্তুত, ছাত্রদের স্মৃতিশক্তির তারতম্যের ভিত্তিতে এই বিভাগের মেয়াদের তারতম্য হয়। তবে মধ্যস্তরের স্মৃতিশক্তির অধিকারী ছাত্ররা তিন বছরে পূর্ণ কুরআন হিফ্‌জ সম্পন্ন করতে পারে।
আর আরবী ভাষা ও সাহিত্য বিভাগের সময়সীমা এক বছর। এই বিভাগে বিভিন্ন প্রতিষ্টান থেকে স্নাতকোত্তর ডিগ্রীপ্রাপ্ত ছাত্ররা ভর্তি হয়।
স্মর্তব্য যে, হিফ্‌জ এবং আরবী ভাষা ও সাহিত্য বিভাগদু’টি ঐচ্ছিক বিভাগ। আনন্দের সাথে উল্লেখ্য যে, জামিয়ার হিফ্‌জ বিভাগটি দেশের বৃহত্তর হিফ্‌জ বিভাগসমুহের অন্যতম। এই বিভাগে ১৪ জন অভিজ্ঞ শিক্ষকের তত্ত্বাবধানে প্রায় সারে তিনশ’ ছাত্র অধ্যায়ন করে। তাছাড়া শরয়ী ইল্‌ম-এর বিভিন্ন শাখা বিষয়ে উচ্চপর্যায়ের বিশেষ জ্ঞানার্জনের ( التخصص ) বিভিন্ন বিভাগ খোলার জামিয়ার পরিকল্পনা রয়েছে। আল্লাহ তা সহজ করে দিন এবং সেগুলোকে কবুল করে নিন। আমীন।