আল-জামিয়াতুল ইসলামিয়া দারুল উলুম মাদানী নগর এর বৈশিষ্ট্য

032

দারুল উলুম দেওবন্দ-এর দিকে সম্পর্কীত ভারত উপমহাদেশের কওমী মাদরাসাগুলো যে সমস্ত বৈশিষ্ট্যে সমুজ্জ্বল, আমাদের এই জামিয়াও সে সমস্ত বৈশিষ্ট্যে ধন্য। আল্লাহর জন্যই সর্ব প্রকারের সমস্ত প্রসংশা। তবে দু’টি জিনিসকে জামিয়ার সবচেয়ে স্পষ্ট ও দৃশ্যমান বৈশিষ্ট বলা যায়। হাজার হাজার মাদরাসার মধ্যে অল্পসংখক মাদরাসাই এই বৈশিষ্ট্যদ্বয়ের ধন্য হয়েছে। বৈশিষ্ট দুটি হল-

১. সমস্ত কর্মকান্ড ও তৎপরতায় ইখলাছ ও একনিষ্ঠতা এবং ইহ্‌তিসাব্‌ ও ছাওয়াব প্রাপ্তির মনোভাব। কারণ, জামিয়ার বিশ্বাস হলো, যে কাজ আল্লাহর জন্য হতা স্থায়ী ও চিরন্তন থাকে। আর যা গায়রুল্লাহ তথা আল্লাহ ছাড়া অন্য কারো সন্তুষ্টি লাভের জন্য করা হয় তা অস্থায়ী ও সাময়ীক হয়।

২. ছাত্রদেরকে পরিচ্ছন্ন ইসলামী প্রতিপালনে প্রতিপালিত করা। বস্তুত, জামিয়া আলিম (?) তৈরীর পূর্বে ‘মানুষ’ নির্মাণের উপর জোর দেয় এবং দেশব্যাপী হাকডাক সম্পন্ন ব্যক্তি জন্ম দেয়ার পূর্বে মানব কাঠামোর কিছু মৌলিক কিছু মৌলিক উপাদান তৈরীর প্রতি গুরুত্ব দেয়।

উপরোক্ত বৈশিষ্ট্য দু’টি জামিয়ার যে কোন দর্শনার্থীর নজর কাড়ে, সে যত সাধারণই হোক না কেন।

S20